Breaking News
Home / বাণী চিরন্তন / স্বামী বিবেকানন্দ এর বিখ্যাত বাণী (পর্ব-১)

স্বামী বিবেকানন্দ এর বিখ্যাত বাণী (পর্ব-১)

স্বামী বিবেকানন্দ এর বাণী, স্বামী বিবেকানন্দ এর উক্তি

১। প্রথমে অন্নের ব্যবস্থা করতে হবে, তারপর ধর্ম।
-স্বামী বিবেকানন্দ
২। একটি রাষ্ট্রের অগ্রগতি জানার সবচেয়ে ভাল উপায় হল সেই রাষ্ট্রে নারীর অবস্থান।
-স্বামী বিবেকানন্দ
৩। সত্যকে হাজার আলাদা আলাদা উপায়ে বলা যেতে পারে, তারপরেও সব কিছু সত্যই থাকে।
-স্বামী বিবেকানন্দ
৪। নিজেদের বিপদ থেকে টেনে তোলো! তোমার উদ্ধার-সাধন তোমাকেই করতে হবে।
-স্বামী বিবেকানন্দ
৫। সাফল্য লাভ করিতে হইলে প্রবল অধ্যবসায়, প্রচণ্ড ইচ্ছাশক্তি থাকা চাই।
-স্বামী বিবেকানন্দ
৬। অসংযত ও উচ্ছৃঙ্খল মন আামাদের নিয়ত নিম্ন থেকে নিম্নতর স্তরে নিয়ে যাবে এবং চরমে আমাদের বিধ্বস্ত করবে, ধ্বংস করবে। আর সংযত ও সুনিয়ন্ত্রিত মন আমাদের রক্ষা করবে, মুক্তিদান করবে।
-স্বামী বিবেকানন্দ
৭। মানুষের সেবাই হলো ভগবানের সেবা।
-স্বামী বিবেকানন্দ
৮। শক্তি ও সাহসিকতাই ধর্ম। দুর্বলতা ও কাপুরুষতাই পাপ। অপরকে ভালোবাসাই ধর্ম, অপরকে ঘৃণা করাই পাপ । ফলে সুস্থ জীবনে বাঁচতে এই রাস্তাই একান্ত কাম্য।
-স্বামী বিবেকানন্দ
৯। অমৃতের পুত্র’ – কী মধুর ও আশার নাম! হে ভ্রাতৃগণ, এই মধুর নামে আমি তোমাদের সম্বোধন করতে চাই। তোমরা অমৃতের অধিকারী। …তোমরা ঈশ্বরের সন্তান, অমৃতের অধিকারী-পবিত্র ও পূর্ণ।
-স্বামী বিবেকানন্দ
১০। পরোপকারই জীবন, পরহিতচেষ্ঠার অভাবই মৃত্যু। শতকরা নব্বই জন নরপশুই মৃত, প্রেততুল্য; কারণ হে যুবকবৃন্দ, যাহার হৃদয়ে প্রেম নাই, সে মৃত ছাড়া আর কি?
-স্বামী বিবেকানন্দ

১১। মানুষকে সর্বদা তাহার দুর্বলতার বিষয় ভাবিতে বলা তাহার দুর্বলতার প্রতীকার নয়- তাহার শক্তির কথা স্মরণ করাইয়া দেওয়াই প্রতিকারের উপায়। তাহার মধ্যে যে শক্তি পূর্ব হইতে বিরাজিত ,তাহার বিষয় স্মরণ করাইয়া দাও।
-স্বামী বিবেকানন্দ
১২। কেবল শারীরিক সাহায্য দ্বারা জগতের দুঃখ দূর করা যায় না। যতদিন না মানুষের প্রকৃতি পরিবর্তিত হইতেছে, ততদিন এই শারীরিক অভাবগুলি সর্বদাই আসিবে এবং দুঃখ অনুভূত হইবেই হইবে।
-স্বামী বিবেকানন্দ
১৩। চরিত্র গঠনের জন্য ধীর ও অবিচলিত যত্ন, এবং সত্যোপব্ধির জন্য তীব্র প্রচেষ্টাই কেবল মানব জাতির ভবিষৎ জীবনের উপর প্রভাব বিস্তার করিতে পারে।
-স্বামী বিবেকানন্দ
১৪। ওরে, কেউ কাকেও শেখাতে পারে না। ‘শেখাচ্ছি’ মনে করেই শিক্ষক সব মাটি করে।
-স্বামী বিবেকানন্দ
১৫। মানুষ মূর্খের মত মনে করে, স্বার্থপর উপায়ে সে নিজেকে সুখী করিতে পারে। বহুকাল চেষ্টার পর অবশেষে বুঝিতে পারে-প্রকৃত সুখ স্বার্থরতার নাশে এবং সে নিজে ব্যতীত অপর কেহই তাহাকে সুখী করিতে পারে না।
-স্বামী বিবেকানন্দ
১৬। তোমাদের সকলের উপর ভগবানের আর্শীবাদ বর্ষিত হ্উক! তাঁহার শক্তি তোমাদের সকলের ভিতর আসুক-আমি বিশ্বাস করি, তাঁহার শক্তি তোমাদের মধ্যেই রহিয়াছে।
-স্বামী বিবেকানন্দ
১৭। দর্শনবর্জিত ধর্ম কুসংস্কারে গিয়ে দাঁড়ায়, আবার ধর্মবর্জিত দর্শন শুধু নাস্তিকতায় পরিণত হয়। আমাদের নিম্নশ্রেণীর জন্য কর্তব্য এই, কেবল তাহাদিগকে শিক্ষা দেওয়া এবং তাহাদের বিনষ্টপ্রায় ব্যক্তিত্ববোধ জাগাইয়া তোলা।
-স্বামী বিবেকানন্দ
১৮। জোর ক’রে সংস্কারের চেষ্টার ফল এই যে, তাতে সংস্কার বা উন্নতির গতিরোধ হয়।
-স্বামী বিবেকানন্দ
১৯। হে বীরহৃদয় যুবকগণ ,তোমরা বিশ্বাস কর যে ,তোমরা বড় বড় কাজ করবার জন্য জন্মেছ। ওঠ, জাগো, আর ঘুমিও না; সকল অভাব, সকল দুঃখ ঘুচাবার শক্তি তোমাদের ভিতরেই আছে।
-স্বামী বিবেকানন্দ
২০। তোমরা কাজ করে চল। দেশবাসীর জন্য কিছু কর-তাহলে তারাও তোমাদের সাহায্য করবে, সমগ্র জাতি তোমার পিছনে থাকবে। সাহসী হও, সাহসী হও! মানুষ একবারই মরে।
-স্বামী বিবেকানন্দ মনীষীদের উক্তি

Check Also

মন নিয়ে বাণী

সততার বাণী

সততার বাণী, সততার উক্তি, সত্যের বাণী ,সত্যের উক্তি ঃ ১। সৎ লোক সাতবার বিপদে পড়লে আবার উঠে কিন্তু ...

DMCA.com Protection Status