Home / বাংলা কবিতা (কবিতার বিষয় অনুযায়ী) / শীতের কবিতা / ওগো শীত – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

ওগো শীত – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

ওগো শীত, ওগো শুভ্র, হে তীব্র নির্মম,

তোমার উত্তরবায়ু দুরন্ত দুর্দম

অরণ্যের বক্ষ হানে। বনস্পতি যত

থর থর কম্পমান, শীর্ষ করি নত

আদেশ-নির্ঘোষ তব মানে। “জীর্ণতার

মোহবন্ধ ছিন্ন করো’ এ বাক্য তোমার

ফিরিছে প্রচার করি জয়ডঙ্কা তব

দিকে দিকে। কুঞ্জে কুঞ্জে মৃত্যুর বিপ্লব

করিছে বিকীর্ণ শীর্ণ পর্ণ রাশি রাশি

শূন্য নগ্ন করি শাখা, নিঃশেষে বিনাশি

অকাল-পুষ্পের দুঃসাহস।

হে নির্মল,

সংশয়-উদ্বিগ্ন চিত্তে পূর্ণ করো বল।

মৃত্যু-অঞ্জলিতে ভরো অমৃতের ধারা,

ভীষণের স্পর্শঘাতে করো শঙ্কাহারা,

শূন্য করি দাও মন; সর্বস্বান্ত ক্ষতি

অন্তরে ধরুক শান্ত উদাত্ত মুরতি,

হে বৈরাগী। অতীতের আবর্জনাভার,

সঞ্চিত লাঞ্ছনা গ্লানি শ্রান্তি ভ্রান্তি তার

সম্মার্জন করি দাও। বসন্তের কবি

শূন্যতার শুভ্র পত্রে পূর্ণতার ছবি

লেখে আসি’, সে-শূন্য তোমারি আয়োজন,

সেইমতো মোর চিত্তে পূর্ণের আসন

মুক্ত করো রুদ্র-হস্তে; কুজ্‌ঝটিকারাশি

রাখুক পুঞ্জিত করি প্রসন্নের হাসি।

বাজুক তোমার শঙ্খ মোর বক্ষতলে

নিঃশঙ্ক দুর্জয়। কঠোর উদগ্রবলে

দুর্বলেরে করো তিরস্কার; অট্টহাসে

নিষ্ঠুর ভাগ্যেরে পরিহাসো; হিমশ্বাসে

আরাম করুক ধূলিসাৎ। হে নির্মম,

গর্বহরা, সর্বনাশা, নমো নমো নমঃ।

Check Also

শীতের বিদায় – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

তুঙ্গ তোমার ধবলশৃঙ্গশিরে উদাসীন শীত, যেতে চাও বুঝি ফিরে? চিন্তা কি নাই সঁপিতে রাজ্যভার নবীনের ...

DMCA.com Protection Status