Breaking News
Home / বাংলা কবিতা (page 30)

বাংলা কবিতা

মানুষ – বিনয় মজুমদার

দেবভাষার ব্যাকরণ অনুসারে মানুষসৃষ্টি করা হয় । দেবভাষার ব্যাকরণ একখানা ‘সমগ্র ব্যাকরণ কৌমুদী’ । পাঠক দেখুন দেবভাষায় একটি শব্দ নেই ‘মনোলীন’ শব্দটি নেই । শব্দরা সব দেবদেবী । দেবভাষায় মনোলীন শব্দদেবতাটি নেই । এইবার আমি মনোলীন শব্দটি লিখছি । তাহলে ভবিষ্যতে মনোলীন শব্দদেবতাটি সৃষ্টি হবে – দেখতেহবে মানুষের মতো । ...

Read More »

আমরা দুজনে মিলে – বিনয় মজুমদার

আমরা দুজনে মিলে জিতে গেছি বহুদিন হলো । তোমার গায়ের রঙ এখনো আগের মতো , তবে তুমি আর হিন্দু নেই , খৃষ্টান হয়েছো । তুমি আর আমি কিন্তু দুজনেই বুড়ো হয়ে গেছি । আমার মাথার চুল যেরকম ছোটো করে ছেঁটেছি এখন তোমার মাথার চুলও সেইরূপ ছোটো করে ছাঁটা , ছবিতে ...

Read More »

আমার আশ্চর্য ফুল – বিনয় মজুমদার

আমার আশ্চর্য ফুল, যেন চকোলেট, নিমিষেই গলাধঃকরণ তাকে না ক’রে ক্রমশ রস নিয়ে তৃপ্ত হই, দীর্ঘ তৃষ্ণা ভুলে থাকি আবিষ্কারে, প্রেমে। অনেক ভেবেছি আমি, অনেক ছোবল নিয়ে প্রাণে জেনেছি বিদীর্ণ হওয়া কাকে বলে, কাকে বলে নীল- আকাশের হৃদয়ের; কাকে বলে নির্বিকার পাখি। অথবা ফড়িঙ তার স্বচ্ছ ডানা মেলে উড়ে যায়। ...

Read More »

আমার শোবার ঘর ছেড়ে – বিনয়মজুমদার

আমার শোবার ঘর ছেড়ে আমি বারান্দায় গিয়ে দাঁড়ালাম। বারান্দার পাশ দিয়ে একটি মুকুট হেঁটে চলে গেল অতিশয় ধীরে, আমি মনোযোগ দিয়ে তার বস্তাবৃত অঙ্গ দেখলাম। এ মুকুট প্রৌঢ়া ফলে মুকুটের ফুল দুটি বেশ ঝুলে পড়েছে নিশ্চয়, আরো এ বয়সে ফুলে অনেক নখের দাগ নিশ্চয় লেগেছে মুকুট পরার কালে ফুল টেপবার ...

Read More »

আমার বাড়ির থেকে – বিনয় মজুমদার

আমার বাড়ির থেকে বাইরে বেরিয়ে দেখি অগণিত যুবতী চলেছে। এইসব বিবাহিতা এবং অবিবাহিতা যুবতীদিগের প্রত্যেকের অন্তরে জয়পতাকা কিভাবে থাকে আমি সু ন্দর নিখুঁতভাবে দেখি তাকিয়ে তাকিয়ে ওরা যখন হাঁটেঁ বাবসে থাকে। প্রত্যেকটি যুবতীর অন্তরে জয়পতাকা প্রবেশ করেছে বহুবার, নিজের অন্তরে ঢোকা জয়পতাকাকে খুব ভালবাসে যে কোনো যুবতী। অনেক জয়পতাকা অন্তরে ...

Read More »

মুকুট – বিনয় মজুমদার

এখন পাকুড়গাছে সম্পূর্ণ নূতন পাতা, তার সঙ্গে বিবাহিত এই বটগাছে লাল লাল ফল ফলে আছে। চারিদিকে চিরকাল আকাশ থাকার কথা,আছে কিনা আমি দেখে নিই। অনেক শালিক পাখি আসে রোজ এই গাছে,বট ফলগুলি তারা খুটেঁ খুটেঁ খায় বসন্তের হাওয়া বয়, শালিকের ডাক এবং পাতার শব্দ মিশে একাকার হয়ে চারদিকে ভাসে। এখন ...

Read More »

চাদেঁর গুহার দিকে – বিনয় মজুমদার

চাদেঁর গুহার দিকে নির্নিমেষে চেয়ে থাকি, মেঝের উপরে দাড়িয়েঁ রয়েছে চাঁদ, প্রকাশ্য দিনের বেলা, স্পষ্ট দেখা যায় চাদেঁর গুহার দিকে নির্নিমেষে চেয়ে থাকি, ঘাসগুল ছোট করে ছাঁটা। ঘাসের ভিতর দিয়ে দেখা যায় গুহার উপরকার ভাঁজ। গুহার লুকোনো মুখ থেকে শুরু হয়ে সেই ভাঁজটি এসেছে বাহিরে পেটের দিকে। চাঁদ হেঁটে এসে ...

Read More »

সন্তপ্ত কুসুম ফুটে – বিনয় মজুমদার

সন্তপ্ত কুসুম ফুটে পুনরায় ক্ষোভে ঝরে যায়। দেখে কবিকুল এত ক্লেশ পায়, অথচ হেতরু, তুমি নিজে নির্বিকার, এই প্রিয় বেদনা বোঝো না। কে ক্থোয় নিভে গেছে তার গুপ্ত কাহিনী জানি। নিজের অন্তর দেখি, কবিতার কোনো পঙক্তি আর মনে নেই গোধূলিতে; ভালোবাসা অবশিষ্ট নেই। অথবা গৃহের থেকে ভুল বহির্গত কোনো শিশু ...

Read More »

কী উৎফুল্ল আশা নিয়ে – বিনয় মজুমদার

কী উৎফুল্ল আশা নিয়ে সকালে জেগেছি সবিনয়ে। কৌটার মাংসের মতো সুরক্ষিত তোমার প্রতিভা উদ্ভাসিত করেছিল ভবিষ্যৎ, দিকচক্রবাল। সময়ে ভেবেছিলাম সম্মিলিত চায়ের ভাবনা, বায়ুসেবনের কথা, চিরন্তন শিখরের বায়ু। দৃষ্টিবিভ্রমের মতো কাল্পনিক বলে মনে হয় তোমাকে অস্তিত্বহীনা, অথবা হয়তো লুপ্ত, মৃত। অথবা করেছে ত্যাগ, অবৈধ পুত্রের মতো, পথে। জীবনের কথা ভাবি, ক্ষত ...

Read More »

মুকুরে প্রতিফলিত – বিনয় মজুমদার

মুকুরে প্রতিফলিত সূর্যালোক স্বল্পকাল হাসে | শিক্ষায়তনের কাছে হে নিশ্চল, স্নিগ্ধ দেবদারু জিহ্বার উপরে দ্রব লবণের মত কণা-কণা কী ছড়ায়, কে ছড়ায় ; শোনো, কী অস্ফুট স্বর, শোনো ‘কোথায়, কোথায় তুমি, কোথায় তোমার ডানা, শ্বেত পক্ষীমাতা, এই যে এখানে জন্ম, একি সেই জনশ্রুত নীড় না মৃত্তিকা? নীড় না মৃত্তিকা পূর্ণ ...

Read More »
DMCA.com Protection Status