কুসুম কুমারী দাশ

কুসুম কুমারী দাশ kusum kumari das

আদর্শ ছেলে -কুসুমকুমারী দাশ

আমাদের দেশে হবে সেই ছেলে কবে কথায় না বড় হয়ে কাজে বড় হবে ? মুখে হাসি, বুকে বল তেজে ভরা মন “মানুষ হইতে হবে” — এই তার পণ, বিপদ আসিলে কাছে হও আগুয়ান, নাই কি শরীরে তব রক্ত মাংস প্রাণ ? হাত, পা সবারই আছে মিছে কেন ভয়, চেতনা রয়েছে ...

Read More »

মনুষ্যত্ব – কুসুমকুমারী দাশ

একদিন লিখেছিনু আদর্শ যে হবে “কথায় না বড় হয়ে কাজে বড় হবে” | আজ লিখিতেছি বড় দুঃখ লয়ে প্রাণে তোমরা মানুষ হবে কাহার কল্যাণে ? মানুষ গড়িয়া ওঠে কোন্ উপাদানে ; বাঙালি বোঝেনি তাহা এখনো জীবনে— পুঁথি হাতে পাঠ শেখা—দু-চারটে পাশ আজিকার দিনে তাহে মিলে না আশ্বাস, চাই শৌর্য, চাই ...

Read More »

অরূপের রূপ – কুসুমকুমারী দাশ

রূপসিন্ধু মাঝে হেরি অরূপ তোমায়, হৃদয় ভরিয়া গেল সুধার ধারায়! কোন্ মৃত্তিকায় খুঁজি কোন তীর্থ-নীরে, স্ব-প্রকাশ বিরাজিত বিশ্বের মন্দিরে— উদার আকাশ তল, সিন্ধুর সুনীল জল, ওই গিরি নির্ঝরিনী অশ্রান্ত উচ্ছল | প্রান্তর দিগন্ত-লীন শ্যামা মধুরিমা, প্রকৃতির অঙ্গে অঙ্গে কার এ সুষমা? হায়রে সম্বলহীন, কুণ্ঠা ছিল মনে— তাঁর দেখা পাবি তুই ...

Read More »

সাধন পথে – কুসুমকুমারী দাশ

এক বিন্দু অমৃতের লাগি কি আকুল পিপাসিত হিয়া, এক বিন্দু শান্তির লাগিয়া কর্মক্লান্ত দুটি বাহু দিয়া— কাজ শুধু করে যায় অন্তরেতে দুরন্ত সাধনা, তুমি তার দীর্ঘ পথে হবে সাথী একান্ত ভাবনা | সে জানে এ আরাধনা কবে তার হইবে সফল ; তব বাণী যেই দিন তারি ভাষা হয়ে ঘুচাবে সকল ...

Read More »

উদ্বোধন – কুসুমকুমারী দাশ

বঙ্গের ছেলে-মেয়ে জাগো, জাগো, জাগো, পরের করুণা কেন শুধু মাগো— আপনারে বলে নির্ভর রাখো হবে জয় নিশ্চয়— চারিদিকে হেরো কী দুঃখ-দুর্দিন, কত ভাই বোন অন্ন-বস্ত্র-হীন, সোনার বাংলা হয়েছে মলিন কী দীরুণ বেদনায়— তোমরা জাগিয়া দুঃখ ঘুচালে, সকলের ব্যথা সকলে বুঝিলে ত্যাগ, একতায় জাগিয়া উঠিলে, তবে বঙ্গ রক্ষা পায় | পৃথিবী ...

Read More »

বন্দনা – কুসুমকুমারী দাশ

বিশ্ব আঁধার ভেদিয়া করে বন্দনা নবীন রক্ত তপন মহান আলোকে | গরজি গভীর স্বননে ধায় পারাবার চুমিতে চরণতল অতুল পুলকে! বনে উপবনে ফোটে কত ফুল শিশিরসিক্ত নব-লাবণ্যে ভরিয়া পরিমল শোভা সকলি বিকশি উঠে তব মধুর পরশ লাগিয়া দিগ্ দিগন্তে চুমিয়া বহে সমীরণ কাহারে খুঁজিছে সে দিশেহারা ? শান্ত উদার গগনে, ...

Read More »

মায়ের প্রতি – কুসুমকুমারী দাশ

তোমার বন্দিনী মূর্তি ফুটিল যখন, দীপ্ত দিবালোকে, সহস্র ভায়ের প্রাণ উঠিল শিহরি, ঘৃণা, লজ্জা, শোকে | পবিত্র বন্দনমন্ত্রে কম্পিত বাংলা দূর আর্য ভূমি! মুক্তকণ্ঠে যুক্তকরে ডাকিছে তোমায়, হে লজ্জাবারিণী— | সাধনার ধন তুমি ভারতবাসীর,— সহস্র পীড়নে, উপবাসে, অনশনে ভোলে নাই তোমা | দুর্বল সন্তানে দিব্য মন্ত্রে দিব্য স্নেহে দাও স্থান ...

Read More »

বসন্তে – কুসুমকুমারী দাশ

উত্সব গান, মধুময় তান আকাশ ধরণী-তলে কুঞ্জে কুঞ্জে বিহগ কণ্ঠে লতায় পাতায় ফুলে | হৃদয়ে সবার দিয়েছে রে দোল নাচিয়া উঠিছে প্রাণ, (এ যে) নূতন দেশের মোহন ঝঙ্কার নূতন দেশের গান | এ বসন্ত কার, দিতেছে বাহার চেতনার ঢেউ খুলি কেবা আপনার, কেবা পর আর ব্যবধান গেছে খুলি আজ সে ...

Read More »

দাদার চিঠি – কুসুমকুমারী দাশ

আয়রে মনা, ভুতো, বুলী আয়রে তাড়াতাড়ি, দাদার চিঠি এসেছে আজ, শুনাই তোদের পড়ি | “কলকাতাতে এসেছি ভাই কালকে সকাল বেলা, হেথায় কত গাড়ি, ঘোড়া, কত লোকের মেলা | পথের পাশে সারি সারি দু’কাতারে বাড়ি দিন রাত্তির হুস্ হুস্ করে ছুটেছে রেল গাড়ি | আমি কি ভাই গেছি বুলে তোদের মলিন ...

Read More »

খোকার বিড়াল ছানা – কুসুমকুমারী দাশ

সোনার ছেলে খোকামণি, তিনটি বিড়াল তার, একডণ্ড নাহি তাদের করবে চোখের আড় | খেতে শুতে সকল সময় থাকবে তারা কাছে, না হ’লে কি খোকামণির খাওয়া দাওয়া আছে? এত আদর পেয়ে বিড়াছানাগুলি, দাদা, দিদি, মাসি, পিসি সকল গেছে ভুলি | সোনামুখী, সোহাগিনী, চাঁদের কণা ব’লে ডাকে খোকা, ছানাগুলি যায় আদরে গলে ...

Read More »
DMCA.com Protection Status