Breaking News

জীবনানন্দ দাশ

জীবনানন্দ দাশ ( Jibanananda Das ) ছিলেন আধুনিক বাংলা সাহিত্যের অন্যতম প্রধান জনপ্রিয় কবি। তাকে বাংলা সাহিত্যের সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ট কবিদের মধ্যে একজন হিসেবে ধরে নেওয়া। জীবনানন্দ দাশ ১৮৯৯ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশের বরিশাল জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। জীবনানন্দ দাশের বেশিরভাগ কবিতাই (Kobita) রচিত হয়েছে গ্রাম বাংলা নিয়ে তাই তাকে রূপসী বাংলার কবি বলা হয়। বাংলার মুখ, বনলতা সেন, পঁচিশ বছর পরে, কুড়ি বছর পরে, আমি যদি হতাম, সুরঞ্জনা ইত্যাদি তার বিখ্যাত কবিতা (Poem)। তার মা কুসুমকুমারী দাশও ছিলেন একজন বিখ্যাত মহিলা কবি। জীবনানন্দ দাশ ১৯৫৪ সালের ১৪ই অক্টোবর কলকাতার এক ট্রাম দুর্ঘটনায় নিহত হন। মৃত্যুর পরই তার জনপ্রিয়তা সবচেয়ে বেশি বৃদ্ধি পায়।

অন্য এক প্রেমিককে __জীবনানন্দ দাশ

মাথার উপর দিয়ে কার্তিকের মেঘ ভেসে যায়; দুই পা স্নিগ্ধ করে প্রান্তরের ঘাস; উঁচু-উঁচু গাছের অস্পষ্ট কথা কী যেন অন্তিম সূত্র নিয়ে, বাকিটুকু অবিরল গাছের বাতাস। চিলের ডানার থেকে ঠিকরিয়ে রোদ চুমোর মতন চুপে মানুষের চোখে এসে পড়ে; শত টুকরোর মতো ভেঙে সূর্য ক্রমে আরও স্থির- স্থিরতর হতে চায় নদীর ...

Read More »

অন্য প্রেমিককে __জীবনানন্দ দাশ

মাছরাঙা চ’লে গেছে — আজ নয় কবেকার কথা; তারপর বারবার ফিরে এসে দৃশ্যে উজ্জল। দিতে চেয়ে মানুষের অবহেলা উপেক্ষায় হ’য়ে গেছে ক্ষয়; বেদনা পেয়েছে তবু মানুষের নিজেরও হৃদয় প্রকৃতির অনির্বচনীয় সব চিহ্ন থেকে দু’ চোখ ফিরিয়ে; বুদ্ধি আর লালসার সাধনাকে সব চেয়ে বড় ভেবে নিয়ে। মাছরাঙা চ’লে গেছে — আজ ...

Read More »

একটি নক্ষত্র আসে __জীবনানন্দ দাশ

একটি নক্ষত্র আসে; তারপর একা পায়ে চ’লে ঝাউয়ের কিনার ঘেঁষে হেমন্তের তারাভরা রাতে সে আসবে মনে হয়; – আমার দুয়ার অন্ধকারে কখন খুলেছে তার সপ্রতিভ হাতে! হঠাৎ কখন সন্ধ্যা মেয়েটির হাতের আঘাতে সকল সমুদ্র সূর্য সত্বর তাকে ঘুম পাড়িয়ে রাত্রি হতে পারে সে এসে এগিয়ে দেয়; শিয়রে আকাশ দূর দিকে ...

Read More »

তোমায় আমি – জীবনানন্দ দাশ

তোমায় আমি দেখেছিলাম ব’লে তুমি আমার পদ্মপাতা হলে; শিশির কণার মতন শূন্যে ঘুরে শুনেছিলাম পদ্মপত্র আছে অনেক দূরে খুঁজে খুঁজে পেলাম তাকে শেষে। নদী সাগর কোথায় চলে ব’য়ে পদ্মপাতায় জলের বিন্দু হ’য়ে জানি না কিছু-দেখি না কিছু আর এতদিনে মিল হয়েছে তোমার আমার পদ্মপাতার বুকের ভিতর এসে। তোমায় ভালোবেসেছি আমি, ...

Read More »

সে __জীবনানন্দ দাশ

আমাকে সে নিয়েছিলো ডেকে; বলেছিলো: ‘এ নদীর জল তোমার চোখের মত ম্লান বেতফল: সব ক্লান্তি রক্তের থেকে স্নিগ্ধ রাখছে পটভূমি; এই নদী তুমি।’ ‘এর নাম ধানসিঁড়ি বুঝি?’ মাছরাঙাদের বললাম; গভীর মেয়েটি এসে দিয়েছিলো নাম। আজো আমি মেয়েটিকে খুঁজি; জলের অপার সিঁড়ি বেয়ে কোথায় যে চলে গেছে মেয়ে। সময়ের অবিরল শাদা ...

Read More »

আমাকে একটি কথা দাও __জীবনানন্দ দাশ

আমাকে একটি কথা দাও যা আকাশের মতো সহজ মহৎ বিশাল, গভীর – সমস্ত ক্লান্ত হতাহত গৃহবলিভুকদের রক্তে মলিন ইতিহাসের অন্তর ধুয়ে চেনা হাতের মতন: আমি যাকে আবহমান কাল ভালোবেসে এসেছি সেই নারীর। সেই রাত্রির নক্ষত্রালোকিত নিবিড় বাতাসের মতো; সেই দিনের – আলোর অন্তহীন এঞ্জিন-চঞ্চল ডানার মতন সেই উজ্জ্বল পাখিনীর – ...

Read More »

সময়-সেতু-পথে __জীবনানন্দ দাশ

ভোরের বেলার মাঠ প্রান্তর নীলকন্ঠ পাখি দুপুরবেলার আকাশে নীল পাহাড় নীলিমা, সারাটি দিন মীনরৌদ্রমুখর জলের স্বর,- অনবসিত বাহির-ঘরের ঘরণীর এই সীমা। তবুও রৌদ্র সাগরে নিভে গেল; ব’লে গেলঃ ‘অনেক মানুষ ম’রে গেছে’; ‘অনেক নারীরা কি তাদের সাথে হারিয়ে গেছে?’-বলতে গেলাম আমি; উঁচু গাছের ধূসর হাড়ে চাঁদ না কি সে পাখি ...

Read More »

সূর্য নক্ষত্র নারী – ১ __জীবনানন্দ দাশ

তোমার নিকট থেকে সর্বদাই বিদায়ের কথা ছিলো সব চেয়ে আগে; জানি আমি। সে-দিনও তোমার সাথে মুখ-চেনা হয় নাই। তুমি যে এ-পৃথিবীতে র’য়ে গেছো। আমাকে বলেনি কেউ। কোথাও জলকে ঘিরে পৃথিবীর অফুরান জল র’য়ে গেছে;- যে যার নিজের কাজে আছে, এই অনুভবে চ’লে শিয়রে নিয়ত স্ফীত সুর্যকে চেনে তারা; আকাশের সপ্রতিভ ...

Read More »

সূর্য নক্ষত্র নারী – ২ __জীবনানন্দ দাশ

চারিদিকে সৃজনের অন্ধকার র’য়ে গেছে, নারী, অবতীর্ণ শরীরের অনুভূতি ছাড়া আরো ভালো কোথাও দ্বিতীয় সূর্য নেই, যা জ্বালালে তোমার শরীর সব অলোকিত ক’রে দিয়ে স্পষ্ট ক’রে দেবে কোনো কালে শরীর যা র’য়ে গেছে। এই সব ঐশী কাল ভেঙে ফেলে দিয়ে নতুন সময় গ’ড়ে নিজেকে না গ’ড়ে তবু তুমি ব্রহ্মান্ডের অন্ধকারে ...

Read More »

সূর্য নক্ষত্র নারী – ৩ __জীবনানন্দ দাশ

তুমি আছো জেনে আমি অন্ধকার ভালো ভেবে যে-অতীত আর যেই শীত ক্লান্তিহীন কাটায়েছিলাম; তাই শুধু কাটায়েছি। কাটায়ে জানেছি এই-ই শূন্যে, তবু হৃদয়ের কাছে ছিল অন্য-কোন নাম। অন্তহীন অপেক্ষার চেয়ে তবে ভালো দ্বীপাতীত লক্ষ্যে অবিরাম চ’লে যাওয়া শোককে স্বীকার ক’রে অবশেষে তবে নিমেষের শরীরের উজ্জলতায়-অনন্তের জ্ঞানপাপ মুছে দিতে হবে। আজ এই ...

Read More »
DMCA.com Protection Status