Breaking News
Home / বাংলা কবিতা (page 12)

বাংলা কবিতা

রঙ্গিয়া রঙ্গে আমি – হাসন রাজা

রঙ্গিয়া রঙ্গে আমি মজিয়াছি রে। মজিয়াছি রে, আমি ডুবিয়াছি রে।। আরশি পড়শী যাই চল, যাইমু বন্ধের সনে রে। কিবা ক্ষণে গিয়াছিলাম সুরমা নদীর গাঙ্গে। বন্ধে মোরে ভুলাইলো, রঙ্গে আর ঢঙ্গে রে।। হাটিয়া যাইতে খসিয়া যায় বন্ধে অঙ্গে, অঙ্গে। ধনকড়ি তোর কিছু চায় না, যৌবন কেবল মাঙ্গে রে। হাছন রাজায় নাচন ...

Read More »

আমি না লইলাম – হাসন রাজা

আমি না লইলাম আল্লাজির নাম। না কইলাম তার কাম। বৃথা কাজে হাছন রাজায় দিন গুয়াইলাম।। ভবের কাজে মত্ত হইয়া দিন গেল গইয়া। আপন কার্য না করিলাম, রহিলাম ভুলিয়া।। নাম লইব নাম লইব করিয়া আয়ু হইল শেষ। এখনও না করিলাম প্রাণ বন্ধের উদ্দেশ।। আশয় বিষয় পাইয়া হাছন (তুমি) কর জমিদারি। চিরকাল ...

Read More »

এগো মইলা – হাসন রাজা

এগো মইলা, তোমার লাগিয়ে হাছন রাজা বাউলা। ভাবতে ভাবতে হাছন রাজা হইল এমন আউলা।। দিনে রাইতে উঠে মনে, প্রেমানলের শওলা। আর কত সহিব প্রাণে, তুই বন্ধের জ্বালা।। সোনার রং অঙ্গ আমার, হইয়াছে রে কালা। অন্তরে বাহিরে আমার জ্বলিয়ে রহিল কয়লা।। লোকে বলে হাছন রাজা হইল রে আজুলা। হাতে তলি দিয়া ...

Read More »

লোকে বলে বলেরে – হাসন রাজা

লোকে বলে বলেরে ঘর-বাড়ি ভালা নাই আমার কি ঘর বানাইমু আমি শূণ্যেরও মাঝার।। ভালা কইরা ঘর বানাইয়া কয়দিন থাকমু আর আয়না দিয়া চাইয়া দেখি পাকনা চুল আমার।। এ ভাবিয়া হাসন রাজা ঘর-দুয়ার না বান্ধে কোথায় নিয়া রাখব আল্লায় তাই ভাবিয়া কান্দে।। জানত যদি হাসন রাজা বাঁচব কতদিন বানাইত দালান-কোঠা করিয়া ...

Read More »

সোনা বন্ধে আমারে – হাসন রাজা

সোনা বন্ধে আমারে দেওয়ানা বানাইলো সোনা বন্ধে আমারে পাগল করিল। আরে না জানি কি মন্ত্র করি জাদু করিল।। রূপের ঝলক দেখিয়া তার আমি হইলাম কানা সেই অবধি লাগল আমার শ্যাম পিরিতির টানা।। হাসন রাজা হইল পাগল লোকের হইল জানা নাচে নাচে পালায় পালায় আর গায়ে জানা।। মুখ চাহিয়া হাসে আমার ...

Read More »

নিশা লাগিল রে – হাসন রাজা

নিশা লাগিল রে, নিশা লাগিল রে, বাঁকা দুই নয়নে নিশা লাগিল রে। হাসন রাজার পিয়ারীর প্রেমে মজিল রে।। ছটফট করে হাসন রাজা দেখিয়া চাঁন মুখ হাসন জানের মুখ দেখিয়া জন্মের গেল দুখ।। হাসন জানের রূপটা দেখি ফালদি ফালদি উঠে চিড়া বাড়া হাসন রাজার বুকের মাঝে টুটে।। আরও পড়ুন… হাসন রাজার ...

Read More »

পরপার – সুভাষ মুখোপাধ্যায়

আমরা যেন বাংলাদেশের চোখের দুটি তারা। মাঝখানে নাক উঁচিয়ে আছে_ থাকুক গে পাহারা। দুয়োরে খিল। টান দিয়ে তাই খুলে দিলাম জানলা। ওপারে যে বাংলাদেশ এপারেও সেই বাংলা।।

Read More »

সকলের গান – সুভাষ মুখোপাধ্যায়

কমরেড, আজ নতুন নবযুগ আনবে না? কুয়াশাকঠিন বাসর যে সম্মুখে। লাল উল্কিতে পরস্পরকে চেনা- দলে টানো হতবুদ্ধি ত্রিশঙ্কুকে, কমরেড, আজ নবযুগ আনবে না? আকাশের চাঁদ দেয় বুঝি হাতছানি? ওসব কেবল বুর্জোয়াদের মায়া- আমরা তো নই প্রজাপতি- সন্ধানী! অন্তত, আজ মাড়াই না তার ছায়া। কুঁজো হয়ে যারা ফুলের মূর্ছা দেখে পৌঁছোয় ...

Read More »

আলালের ঘরের দুলাল – সুভাষ মুখোপাধ্যায়

বুলবুলিতে ধান খেয়েছে খাজনা দেব কিসে পায়ে শিকল দিয়ে কোকিল মরছে কেশে কেশে এ গাঁয়েতে বান তো ও গাঁয়েতে খরা যে করে হোক আখেরে ভোট ভাতের টোপে ধরা নীচেয় থাকে হাবা বোবা ওপরতলায় কালা কাজের জন্যে মানুষ হন্যে দরজাগুলোয় তালা এই এটাকে চেয়ারে বসা ওই ওটাকে হটা সামনে পুলুশ পিছনে ...

Read More »

এখন ভাবনা – সুভাষ মুখোপাধ্যায়

১. এখন একটু চোখে চোখে রাখো- দিনগুলো ভারি দামালো; দেখো, যেন আমাদরে অসাবধানে এই দামালো দিনগুলো গড়াতে গড়াতে গড়াতে গড়াতে আগুনের মধ্যে না পড়ে। আমার ভালোবাসাগুলোকে নিয়েই আমার ভাবনা। এখন সেই বয়স, যখন দূরেরটা বিলক্ষণ স্পষ্ট– শুধু কাছেরটাই ঝাপসা দেখায়। এখন সেই বয়েস, যখন আচমকা মাটিতে প’ড়ে যেতে যেতে মনে ...

Read More »
DMCA.com Protection Status