Breaking News
Home / বাংলা কবিতা (কবিদের তালিকা অনুযায়ী) / শক্তি চট্টোপাধ্যায় (page 3)

শক্তি চট্টোপাধ্যায়

শক্তি চট্টোপাধ্যায় (Shakti Chattopadhyay) ছিলেন একজন বাঙ্গালি কবি,লেখক, ওপন্যাসিক। শক্তি চট্টোপাধ্যায় ১৯৩৩ সালের ২৭ নভেম্বর পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলার জয়নগরে জন্মগ্রহণ করেন। জীবনানন্দ উত্তর সময়ে তাকে সবচেয়ে শক্তিমান কবি হিসেবে ধরে নেওয়া হয়। তিনি কবিদের হাংরি আন্দোলনের পুরোধা ব্যক্তি। যেতে পারি, কিন্তু কেন যাবো? একবার তুমি, অবনী বাড়ি আছো, চাবি, মনে মনে বহুদূর চলে গেছি ইত্যাদি শক্তি চট্টোপাধ্যায়ের বিখ্যাত কবিতা (Poem)।

আতাচোরা __শক্তি চট্টোপাধ্যায়

আতাচোরা পাখিরে কোন তুলিতে আঁকি রে হলুদ ? বাঁশ বাগানে যাইনে ফুল তুলিতে পাইনে কলুদ হলুদ বনের কলুদ ফুল বটের শিরা জবার মূল পাইতে দুধের পাহাড় কুলের বন পেরিয়ে গিরি গোবর্ধন নাইতে ঝুমরি তিলাইয়ার কাছে যে নদিটি থমকে আছে তাইতে আতাচোরা পাখিরে কোন তুলিতে আঁকি রে —হলুদ ?

Read More »

প্রভু, নষ্ট হয়ে যাই __শক্তি চট্টোপাধ্যায়

বার বার নষ্ট হয়ে যাই প্রভু, তুমি আমাকে পবিত্র করো, যাতে লোকে খাঁচাটাই কেনে, প্রভু নষ্ট হয়ে যাই বার বার নষ্ট হয়ে যাই একবার আমাকে পবিত্র করো প্রভু, যদি বাঁচাটাই মুখ্য, প্রভু, নষ্ট হয়ে যাই!

Read More »

বিবাদ __শক্তি চট্টোপাধ্যায়

ভালোবাসা নিয়ে কত বিবাদ করেছো! এখন, টেবিল জোড়া নিবন্ত লণ্ঠনও সহনীয়। অনুভূতি। সবজির মতন বিকোয় না হাটে। হাত কাটে, না রক্ত পড়ে না। বিভীষিকা! দুচোখের পক্ষেও নড়ে না। প্রজড় পিণ্ডের মতো আছো– আজই বিবাদ করেছো। ভালোবাসা নিয়ে কিছু বিবাদ করেছো, কাতর পাথর মিছু বিবাদ করেছো!

Read More »

ভাত নেই, পাথর রয়েছে __শক্তি চট্টোপাধ্যায়

বছর-বিয়োনী মেঘ বৃষ্টি দেয়, বজ্রপাত দেয়– ডোবা’র রহস্য বাড়ে, পদ্মপাতা দীঘিতে তছনছ। শিকড়, কেঁচোর মত, জীবনের অনুগ্রহ পায়, পায় না মাথায় ছাতা, এত হাতা ভাতের মানুষও! মানুষ বারুদ খুবই ভালোবাসে, ধূপগন্ধ যেন আকাশপিদ্দিম গেঁথে মন্ত্রী যায় সানাই বাজাতে, পুলিস-মেথর যায় ঝাঁটা হাতে জানাতে বিদায়– দুষ্টু গরুর চেয়ে শূন্য গোয়ালই, লাগে ...

Read More »

পোড়ামাটি __শক্তি চট্টোপাধ্যায়

দূরে যাও থেকো না এখানে চিরদিন উড়ন্ত শাম্পানে ছন্নছাড়া চিঠি তো পুড়েছে একতাড়া আগুনে পুড়েছে শত পাড়া দূরে যাও থেকো না এখানে দূরে যাও থেকো না এখানে কাকে পাও?

Read More »

একটি মানুষ __শক্তি চট্টোপাধ্যায়

একটি মানুষ দেখেছিলাম, দাঁড়িয়েছিলেন একা হঠাৎ পথে দেখা আমার, হঠাৎ পথে দেখা সবাই তাঁকে দেখতে পায় না সবাই তাঁকে দেখতে পায় না কিন্তু, তিনি দেখেন– কোথায় তোমার দুঃখ কষ্ট, কোথায় তোমার জ্বালা আমায় বলো, আমারই ডালপালা তোমার এবং তোমার, তুমি যেমন ভাবেই কাটো আমি একটু বৃহৎ, তুমি ছোট্ট করেই ছাঁটো ...

Read More »

ছড়ার আমি ছড়ার তুমি __শক্তি চট্টোপাধ্যায়

ছড়া এক্কে ছড়া, ছড়া দুগুণে দুই ছড়ার বুকের মদ্দিখানে পান্‌সি পেতে শুই। ধানের ছড়া গানের ছড়া ছড়ার শতেক ভাই ছড়ার রাজা রবিন ঠাকুর, আর রাজা মিঠাই। আরেক রাজা রায় সুকুমার, আছেন তো স্মরণে? আর ছড়াকার ঘুমিয়ে আছেন সব শিশুদের মনে। ছড়ার আমি ছড়ার তুমি ছড়ার তাহার নাই ছড়া তো নয় ...

Read More »

বাগানে তার ফুল ফুটেছে __শক্তি চট্টোপাধ্যায়

ওইখানে ওই বাগানে তার ফুল ফুটেছে কতো জানতে পারি, ওর মধ্যে কি একটি দেবার মতো? একটি কিম্বা দুটির ইচ্ছে আসতে আমার কাছে তাহার পদলেহন করতে সমস্ত ফুল আছে। সব ফুলই কি গোষ্ঠীগত, সব ফুলই কি চাঁদের একটি দুটি আমায় চিনুক, বাদবাকি সব তাঁদের গাছ তো তাঁহার বাগানভর্তি, আমার রোপণ ছায়া– ...

Read More »

যেতে পারি, কিন্তু কেন যাবো? __শক্তি চট্টোপাধ্যায়

ভাবছি, ঘুরে দাঁড়ানোই ভালো। এতো কালো মেখেছি দু হাতে এতোকাল ধরে! কখনো তোমার ক’রে, তোমাকে ভাবিনি। এখন খাদের পাশে রাত্তিরে দাঁড়ালে চাঁদ ডাকে : আয় আয় আয় এখন গঙ্গার তীরে ঘুমন্ত দাঁড়ালে চিতাকাঠ ডাকে : আয় আয় যেতে পারি যে-কোন দিকেই আমি চলে যেতে পারি কিন্তু, কেন যাবো? সন্তানের মুখ ...

Read More »

সুখে থাকো __শক্তি চট্টোপাধ্যায়

চক্রাকারে বসেছি পাঁচজনে মাঠে, পিছনের পর্চে আলো অন্ধকার সন্ধ্যা নামে বিড়ালের মতো ধীর পায়ে তুমি এসে বসেছো আসনে অকস্মাৎ। হঠাৎই পথে ঘুরতে-ঘুরতে কীভাবে এসেছো একেবারে পাশে, তোমার গায়ের গন্ধ নাকে এসে লাগে বৃদ্ধের রোমাঞ্চ হয়! খুব ভালো আছো? অন্তত এখন, তুমি? তুমি ঠিক আছো? না থাকার মানে হয় বিশেষত যখন ...

Read More »
DMCA.com Protection Status